বেনাপোল প্রতিনিধি


বেনাপোল আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন কাস্টমসে ভারত থেকে ফেরত আসা আব্দুল মালেক নামে এক বাংলাদেশী পাসপোর্ট যাত্রীর নিকট থেকে ৪ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে আয়ুব আলী নামে এক কাস্টমস সিপাহী কে প্রত্যাহার করা হয়েছে।মঙ্গলবার কাস্টমস তল্লাশি কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

পাসপোর্ট যাত্রী আব্দুল মালেক রাজশাহী জেলার বোয়ালিয়া থানার বি ৩৩৪ উপশহর এলাকার বাসিন্দা। তার পাসপোর্ট নং EF 0091301,
আব্দুল মালেক অভিযোগ করে বলেন মেডিকেল ভিসা নিয়ে ভারতে চিকিৎসা শেষে মঙ্গলবার দেশে ফেরার সময় ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম শেষ করে কাস্টমস স্কানার মেশিনে ব্যাগ দেওয়া হলে ব্যাগের ভিতর কিছু কেনাকাটা দেখে সিপাহী আয়ুব আলী এ গুলো নেওয়া যাবে না এবং পন্য গুলো আটক করে তাকে জেল হাজতে দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেয়।

পরে প্রায় ২০ মিনিট বসিয়ে রেখে আমার কাছে থাকা ৪ হাজার টাকা নিয়ে ছেড়ে দেয়।ঘটনাটি কাস্টমস রাজস্ব কর্মকর্তা শারমিন কে বললে তিনি টাকা উদ্ধার করে দেন।
এ ব্যাপারে রাজস্ব কর্মকর্তা শারমিন বলেন ঘটনাটি জানতে পেয়ে টাকা উদ্ধার করে পাসপোর্ট যাত্রী কে ফেরত দেওয়া হয়েছে। আর ঘুষ নেওয়ার অপরাধে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
এ দিকে অনেকেই জানিয়েছেন এআরও আবুল কালাম চেকপোস্ট কাস্টমসে যোগদান করার পর থেকে ল্যাগেজ ব্যাবসা জোরদার হয়েছে।তিনি সিপাহীদের মাধ্যমে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ আদায় করে থাকেন। যা সিসি ক্যামেরা চেক করলে দেখা যাবে।

Sharing is caring!