লক্ষীপুর প্রতিনিধি:


লক্ষীপুরেটি চোরাই মোটরসাইকেলসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের দুই সদস্যকে

আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে সদর উপজেলার মান্দারী-দিঘলী সড়কের
মোসলেহ উদ্দিন মেম্বারের বাড়ি সংলগ্ন এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ।
চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা মো. জুয়েল আইড্ড (৩২) নামে এক
ভুক্তভোগী মোটরসাইকেল মালিক ও তার ‘বাইক-লক’ অ্যাপসের সহযোগিতায় ওই চোরের সন্ধান পায় পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- মো. আবির (২৩) ও নিশাদ অভি (২১)। উদ্ধারকৃত দুটি
মোটরসাইকেলই সুজুকি জিক্সার।পুলিশ ও ভুক্তভোগী জুয়েল জানায়, মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ফরিদগঞ্জ বাজারের হক এন্টারপ্রাইজের সামনে থেকে ব্যবসায়ী জুয়েলের সুজুকি জিক্সার ব্র্যান্ডের একটি মোটরসাইকেল চুরি হয়। পরে তিনি বাইক-লক অ্যাপসের মাধ্যমে
মোটরসাইকেলের লোকেশন শনাক্ত করতে সক্ষম হন। খবর পেয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ ওই
চোরকে মোটরসাইকেলসহ আটক করে। এসময় আরও একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আটককৃত আবির তার স্ত্রী ও জেঠালিসহ সদর উপজেলার মান্দারী-দিঘলী সড়কের মোসলেহ উদ্দিন মেম্বারের বাড়িতে একটি
প্ল্যাটবাসায় ভাড়া থাকে। সে নিশাদের সঙ্গে বিভিন্ন জায়গা থেকে
মোটরসাইকেল চুরি করে এনে এখানে রাখতো এবং এখান থেকেই বিক্রি করতো।
স্থানীয়দের ধারণা- এখানে কোনো এক গডফাদারের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে থেকে তারা এসব অপকর্ম করছে।
চন্দ্রগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুল ইসলাম জানান, ২টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের দুই সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Sharing is caring!