কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ


কুড়িগ্রামে পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি সংগ্রহশালা ও গ্রন্থাগারের উদ্বোধন ও পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।
শুক্রবার(১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে জেলা পুলিশের উদ্যোগে পুলিশ লাইন মাঠে পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি সংগ্রহশালা ও গ্রন্থাগারের উদ্বোধন এবং পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য বিপিএম।
অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম,রংপুর আরআরএফ কমান্ড্যান্ট মেহেদুল করিম পিপিএম,লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা
সুলতানা,চিলমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম, আব্দুল হাই বীর প্রতিক, সাবেক এএসপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আমান উদ্দিন আহমেদ মন্জু,পাবলিক প্রসিকিউটর(পিপি) এসএম আব্রাহাম লিংকন, কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড. আহসান হাবীব নীলু,সলিডারিটি নির্বাহী পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন-অর-রশিদ লাল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ জাতীয় চার নেতা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদদের শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়।
পরে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের প্রথম প্রহরে রাজারবাগে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে তোলে পুলিশ সদস্যরা। বীর মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্যদের জন্য আমরা গর্ব অনুভব করি। কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ সবসময় এসব বীর মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্য এবং তাদের পরিবারবর্গের পাশে থাকবে। পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সংবিধানের চেতনাকে সমুন্নত রাখতে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন পুলিশ কর্মকর্তারা।
পরে জেলার ১৩৭ জন পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধা সদস্যদেরকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম’র পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি সংগ্রহশালা ও গ্রন্থাগার,ক্যাফেটেরিয়া এবং মেহমানখানা করা হয়।

Sharing is caring!